পাওয়ার পয়েন্ট কি? কেন শিখবেন পাওয়ার পয়েন্ট?

আপনি কি পাওয়ার পয়েন্ট সম্পর্কে অনভিজ্ঞ? পাওয়ার পয়েন্ট শেখা নিয়ে চিন্তিত? যদি এসব প্রশ্নের উত্তর হ্যাঁ হয়, তবে এই লেখাটি আপনার জন্য। 

পাওয়ার পয়েন্ট কি কেন শিখবেন পাওয়ার পয়েন্ট

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট বা পাওয়ার পয়েন্টের নাম আমরা সবাই কমবেশি শুনেছি৷ কিন্তু এটা সম্পর্কে জানি কতজন? কেউ কেউ এক কথায় বলবেন এটা দিয়ে কম্পিউটারে স্লাইড বানানো যায়। কিন্তু শুধু স্লাইড বানানোই কাজ না, বরং পাওয়ার পয়েন্টের কাজ ও প্রয়োগবিধি সীমাহীন। ভার্সিটি লাইফ হোক বা কর্পোরেট লাইফ, পাওয়ার পয়েন্ট না জানলে আপনি পিছিয়ে থাকবেন সবার চেয়ে। 

পাওয়ার পয়েন্ট সবাই শিখতে চাই, কিন্তু ভাল কোন সোর্সের অভাবে আমাদের শেখা হয় না। কোথাও শিখতে গেলে হয়তো কোর্স ফি বেশি চায়। বা অনলাইনে শিখতে গিয়েছি, একটি ভিডিওতে সবগুলো টপিক কভার করা থাকেনা। বারবার ইউটিউব ঘেঁটে ঘেঁটে শিখতে গেলে বিরক্ত ও ধৈর্য্যহারা হয়ে যাই সবাই। আবার দেখা যায় ভাল কোন সোর্স থাকলে সেটা বাংলা ভাষায় দেখার উপায় নেই। এসব কারণে পাওয়ার পয়েন্ট শেখাটা মুশকিল হয়ে যায়।

আজকের আর্টিকেলে আপনি পাবেন পাওয়ার পয়েন্টের সাধারণ কিছু জ্ঞানের পাশাপাশি বাংলায় পাওয়ার পয়েন্ট শেখার চমৎকার একটি সোর্স। তো দেরি না করে চলুন চলে যাওয়া যাক মূল আলোচনায়। 

পাওয়ার পয়েন্ট কি?

পাওয়ার পয়েন্ট হল মাইক্রোসফট অফিসের এমন একটি সফটওয়্যার যেটা দিয়ে স্লাইড প্রেজেন্টেশন বানানো যায়। প্রেজেন্টেশন বলতে কোন কিছু উপস্থাপনকে বোঝায়। কোন একটি বিষয় সম্পর্কে বিভিন্ন ধরণের তথ্য স্লাইডের মাধ্যমে উপস্থাপন করাকে প্রেজেন্টেশন বা স্লাইড প্রেজেন্টেশন বলে। এই তথ্য উপস্থাপনের সময় স্লাইডে টেক্সট, অডিও, ইফেক্ট, চার্ট ইত্যাদি ব্যবহার করতে হয়। পরবর্তীতে সেটা প্রজেক্টরের সাহায্যে বড় পর্দায় দর্শক শ্রোতার সামনে উপস্থাপন করতে হয়।

এই স্লাইড বানানো থেকে শুরু করে দর্শকের সামনে তুলে ধরা পর্যন্ত প্রতিটি কাজই পাওয়ার পয়েন্টের সাহায্যে করা যায়। এটা ছাড়াও পাওয়ার পয়েন্ট আরো নানা কাজে ব্যবহৃত হয়। এই প্রেজেন্টেশন সফটওয়্যারের কাজ মূলত একটি তথ্যকে শ্রোতার সামনে আকর্ষণীয়ভাবে তুলে ধরা।

পাওয়ার পয়েন্ট এর সুবিধা

পাওয়ার পয়েন্ট এর সুবিধা অনেক। এক কথায় সহজ করে বলতে গেলে, বড় কোন হিসাব যা হাতে বা ম্যানুয়ালি করা যায় না, সেটা পাওয়ার পয়েন্ট দিয়ে সহজেই করা যায়। আবার কোনকিছুকে আকর্ষণীয় করে তোলার জন্যও পাওয়ার পয়েন্টের জুড়ি নেই।

বড় বড় প্রতিষ্ঠান তাদের বার্ষিক হিসাব পাওয়ার পয়েন্টে সহজেই দেখাতে পারে। এই হিসাব দেখানো যায় পাই চার্ট, গ্রাফ, টেবিল ইত্যাদির মাধ্যমে। এই বার্ষিক লাভ-ক্ষতি বা অন্যান্য হিসাব হাতে বা কাগজে লেখাটা অনেক কঠিন ও সময়সাপেক্ষ। এই ডিজিটাল যুগে সেটা সম্ভবও না। 

তাই সহজে যাতে হিসাবটা সবার দৃষ্টিগোচর হয় ঠিক সেই কাজটাই করে পাওয়ার পয়েন্ট। শুধু বার্ষিক হিসাব কেন, অন্য যেকোন ধরণের বার্ষিক রিপোর্টও পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে তৈরি করা যায়। এছাড়াও কোন প্রজেক্টের ব্যাপারে 'ব্রিফ' করার জন্যও এই সফটওয়্যার একটি অন্যতম মাধ্যম।

অনেকসময় বাচ্চারা বই পড়ায় ভীষণ অনাগ্রহ দেখায়। তাদের পড়াশোনায় আগ্রহ সৃষ্টির জন্য পাওয়ার পয়েন্ট কিন্তু খুব চমৎকার একটা উপায় হতে পারে। একজন শিক্ষক যদি স্লাইডে বিভিন্ন ছবি, মিউজিক, অ্যানিমেশন ইফেক্ট দিয়ে একটি লেসন তৈরি করেন, তাহলে বাচ্চারা সেটা দেখে মজা পাবে। এতে করে হয় কি, পড়াশোনাটা তখন আনন্দদায়ক হয়ে যায়। 

আবার অনেক সময় দেখা যায় যে বইয়ের শব্দগুলো একঘেয়ে, হাজারবার পড়েও একটি জিনিস বোঝা যাচ্ছে না সহজে। এই ক্ষেত্রে পাওয়ার পয়েন্ট কাজে লাগিয়ে জিনিসটি বোধগম্য করা যায়। গবেষণায় দেখা গেছে যে শুধু বইভিত্তিক পড়াশোনা কখনই আমাদের মস্তিষ্কের জন্য সুখকর না। বই পড়ে আমাদের মস্তিষ্ক যতটুকু ধরতে পারে, দৃশ্যমান কোন কিছু দেখে মস্তিষ্ক তার চাইতেও বেশি ধরতে পারে। 

কাজেই পড়াশোনার মত কঠিন জিনিসকে মাঝে মাঝে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করার জন্য পাওয়ার পয়েন্ট প্রশংসার দাবি রাখে। 

কেন শিখবেন পাওয়ার পয়েন্ট?

কেন শিখবেন পাওয়ার পয়েন্ট? এই প্রশ্নের আসলে নির্দিষ্ট কোন উত্তর নেই। প্রথমত, মাইক্রোসফট অফিসের তিনটি গুরুত্বপূর্ণ সফটওয়্যারের একটি হচ্ছে পাওয়ার পয়েন্ট। মাইক্রোসফট অফিসে পুরোপুরি দক্ষতা অর্জন করতে হলে আপনাকে ওয়ার্ড এবং এক্সেলের পাশাপাশি পাওয়ার পয়েন্টও শিখতে হবে। 

দ্বিতীয়ত, আপনি ছাত্র হোন বা পেশাজীবি, প্রেজেন্টেশন দিতে হলে আপনাকে পাওয়ার পয়েন্ট শিখতেই হবে। ধরুন আপনার ভার্সিটিতে একটা প্রেজেন্টেশন দিতে হবে। আপনি নিজে হয়তো পাওয়ার পয়েন্ট সম্পর্কে একেবারেই জানেন না বা খুব কম জানেন। সাহায্যের জন্য বন্ধুর কাছে যাচ্ছেন। অথবা নিজেই কোনমতে স্লাইড সাজিয়ে একটা প্রেজেন্টেশন বানিয়ে আপাতত কাজ সেরে ফেললেন। 

এর ফলটা কি হবে জানেন? 'কোনমতে' বানানো স্লাইড আপনার প্রেজেন্টেশনকে দুর্বল করে দিবে। এরকম পরিস্থিতি যতবার হবে, তত আপনার স্লাইড তৈরিতে ঘাটতি থেকে যাবে। আর এরকম চলতে থাকলে পাওয়ার পয়েন্ট একসময় আপনার কাছে ভীতির কারণ হয়ে যাবে। কাজেই ভীতি দূর করাসহ সঠিকভাবে স্লাইড বানানোর জন্য পাওয়ার পয়েন্ট শেখাটা অত্যাবশ্যক।

তৃতীয়ত, কর্পোরেট লাইফে পাওয়ার পয়েন্টের প্রয়োজনীয়তা নতুন করে আর না বলি। কর্পোরেট লাইফ মানেই প্রেজেন্টেশন আর প্রেজেন্টেশন। আপনি যদি কর্পোরেট দুনিয়ার বাসিন্দা হন, তাহলে তো কথাই নেই। চাকরির প্রয়োজনে আপনি না চাইলেও পাওয়ার পয়েন্ট শিখতে হবে। তবে তার সাথে সাথে নিজের প্রেজেন্টেশন স্কিলের দিকেও সমান নজর দিতে হবে।

চতুর্থত, প্রেজেন্টেশন মানেই শুধু একের পর এক স্লাইড সাজানো না। একটি প্রেজেন্টেশনকে অর্থবহ করার জন্য স্লাইডের পাশাপাশি থিম, ব্যাকগ্রাউন্ড, কালার, টেক্সট, ইফেক্ট, চার্ট, গ্রাফ ইত্যাদি বিষয়ের দিকেও নজর দিতে হয়। মনে রাখবেন, আপনার স্লাইড ম্যানেজমেন্টের উপর নির্ভর করছে আপনার প্রেজেন্টেশনের মান। সুতরাং মানসম্মত প্রেজেন্টেশন তৈরি করতে হলে পাওয়ার পয়েন্টের আদ্যোপান্ত শেখাটা কতটা জরুরি - সেটা নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন।

পাওয়ার পয়েন্ট টিউটোরিয়াল

এতক্ষণ বললাম এই প্রেজেন্টেশন স্লাইডের সুবিধা ও প্রয়োজনীয়তা, এবার আসি পাওয়ার পয়েন্ট টিউটোরিয়াল নিয়ে। 

আপনি যদি ঘরে বসে অনলাইনে পাওয়ার পয়েন্ট শিখতে চান, তাহলে আপনার ইচ্ছা পূরণ করবে লার্নিং বাংলাদেশ। লার্নিং বাংলাদেশ একটি ই-লার্নিং প্লাটফর্ম, যেখানে টেক-রিলেটেড বিভিন্ন বিষয়ের উপর বাংলা ভাষায় কোর্স আপলোড করা হয়। 

পাওয়ার পয়েন্টের উপর লার্নিং বাংলাদেশে পেয়ে যাচ্ছেন একটি চমৎকার পেইড কোর্স। কোর্স ইন্সট্রাক্টর হিসেবে থাকছেন মারুফ ইসলাম। মাত্র সাড়ে ৪ ঘন্টার এই পাওয়ার পয়েন্ট কোর্সটিতে পেয়ে যাবেন পাওয়ার পয়েন্টের এ টু জেড তথ্য। আপনি যদি একেবারেই বিগিনার লেভেলের হন, কোর্সটি করার পরে আপনি হয়ে যাবেন পাওয়ার পয়েন্টের বস! আর যদি পাওয়ার পয়েন্ট নিয়ে আপনার সামান্য জ্ঞানও থাকে, তবে এই পেইড কোর্সটির মাধ্যমে সেটা আরেকটু ঝালাই করার সুযোগও পেয়ে যাবেন।

কোর্সটিতে এনরোল করাও খুব কঠিন কিছু না। Take This Course বাটনে ক্লিক করার পরে বিকাশ/রকেটে/কার্ডের মাধ্যমে কোর্স ফি পরিশোধ করতে পারবেন অনায়াসেই। 

অবিশ্বাস্য মূল্য হ্রাসে কোর্সটি পেতে এখনই এনরোল করুন। 

কেন কিনবেন এই কোর্সটি?

→ কারণ কোর্সটি সম্পূর্ণ বাংলা ভাষায় পাবেন।

→ একদম শূন্য জ্ঞান নিয়েও শিখতে পারবেন। 

→ ঘরে বা যে কোন জায়গায় বসে কোর্সটি করতে পারেন। শুধু একটি স্মার্টফোন এবং ইন্টারনেট কানেকশন থাকলেই যথেষ্ট। 

→ ভিডিও লেসনগুলোর ডিউরেশন খুব কম আর সহজ সাবলীল ভাষায় বর্ণনা করা হয়েছে। 

→ বিগিনার থেকে অ্যাডভান্সড সবাই শিখতে পারবেন।

→ কোর্সটিতে এমন কিছু বিষয় আছে যা সচরাচর অন্য কোথাও পাওয়া মুশকিল। এনরোল করলেই বুঝতে পারবেন।

→ পুরো কোর্সটির ডিউরেশন মাত্র সাড়ে চার ঘন্টা, যা চাইলে আপনি একদিনেই কমপ্লিট করতে পারবেন। তাছাড়া ভিডিও লেসনগুলো চাইলে বারবার দেখতে পারবেন।

→ ২,৫০০ টাকার পরিবর্তে কোর্সটি এখন পাচ্ছেন মাত্র ৪৫০ টাকায়! নামমাত্র মূল্যে এমন সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করা মানেই বোকামী।

→  কোর্স শেষে পেয়ে যাচ্ছেন কমপ্লিশন সার্টিফিকেট। 

বোনাস

বোনাস হিসবে থাকছে পাওয়ার পয়েন্ট নিয়ে আপনাদের জন্য কিছু টিপস।

যা করবেন 

• থিম, কালার, টেক্সট, ইফেক্ট ইত্যাদির প্রতি খেয়াল রাখবেন। যেন এগুলো চোখধাঁধানো বা অস্বস্তিকর না হয়।

• স্লাইডের সিরিয়াল মেইনটেইন করবেন।

• ছোট ছোট বাক্য স্লাইডে লিখবেন।

• বুলেট পয়েন্টের সঠিক ব্যবহার করবেন।

• চার্ট/গ্রাফ/টেবিল সঠিকভাবে বানাবেন এবং স্লাইডে ইনসার্ট করবেন।

• সবগুলো স্লাইড বানানো হলে ভালমত চেক করবেন।

যা করবেন না

★ বিশাল বিশাল সেন্টেন্স লিখে স্লাইড ভরিয়ে রাখবেন না।

★ ইফেক্ট/অ্যানিমেশন শেখার পরে সেগুলো ইচ্ছামত ব্যবহার করবেন না। অতিরিক্ত ইফেক্ট/অ্যানিমেশন স্লাইডের মান নষ্ট করে দেয়, সাথে বিরক্তির কারণও হয়ে দাঁড়ায়।

★ স্লাইডে অপ্রাসঙ্গিক কিছু লিখবেন না। প্রেজেন্টেশন দেয়ার সময়েও অতিরিক্ত নাটকীয়তার (যেমন Thank you for giving me this opportunity) কোন প্রয়োজন নেই। 

পরিশেষে 

বর্তমান চাকরির বাজারে পাওয়ার পয়েন্টের গুরুত্ব অনেক বেশি। হ্যাঁ কিছু কিছু চাকরির সার্কুলারে হয়তো পাওয়ার পয়েন্টের উপর জোর দেয়া হয় না। তবু এটা শিখে রাখলে ক্ষতিও হবেনা। যেসব সার্কুলারে দেখবেন মাইক্রোসফট অফিসে দক্ষতা চাওয়া হয়, ধরেই নিবেন সেখানে পাওয়ার পয়েন্টের কথা আপনাআপনি চলে আসছে।

তো এই ছিল পাওয়ার পয়েন্ট নিয়ে আজকের আয়োজন। আশা করি লেখাটা আপনাদের কাজে লাগবে। ভাল লাগলে লাইক, কমেন্ট, শেয়ার করবেন। আপনাদের রেসপন্স আমাদের কাজে উৎসাহ যোগায়। তাই লাইক/কমেন্ট/শেয়ার করতে ভুলবেন না যেন। আর আপনাদের কোন জিজ্ঞাসা বা পরামর্শ থাকলেও আমাদের সাথে শেয়ার করতে পারেন।


Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url