জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো ? । অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১

বর্তমান সময়ে জিমেইল একাউন্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি জিনিস। প্রতিদিনের বিভিন্ন কাজেই আমাদের এই জিমেইল অ্যাকাউন্ট প্রয়োজন হয়। যেমন ইউটিউব এ একাউন্ট করতে গেলে আমাদের জিমেইল আইডির প্রয়োজন হয়। তাছাড়া বিভিন্ন ওয়েবসাইটে রেজিষ্ট্রেশন করতে গেলেও আমাদের এই জিমেইল অ্যাকাউন্ট এর প্রয়োজন হয়।

কিন্তু যারা এই জিনিসটা জানে না তারা অনেকেই বলে যে জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো? তাই আজকে কিভাবে একটা জিমেইল অ্যাকাউন্ট খুলতে হয়। এই জিনিসটা ধাপে ধাপে দেখাবো। আপনাদের সুবিধার্তে প্রতিটি ধাপের সঙ্গে ইমেজ বা ছবি দিয়ে দেওয়া হয়েছে।

যাতে আপনারা সহজে ছবি দেখে পুরো জিনিসটা ভালো মত বুঝতে পারেন।

জিমেইল অ্যাকাউন্ট বা আইডি খুলতে আমাদের কি কি লাগবে?

জিমেইল একাউন্ট খুলতে গেলে আপনার প্রথমে যেই জিনিসটি লাগবে সেটি হচ্ছে কম্পিউটার/ ল্যাপটপ অথবা আপনি চাইলে মোবাইল দিয়েও জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারেন। দ্বিতীয়ত, আপনার লাগবে ইন্টারনেট সংযোগ। আর লাগবে যেকোনো একটি ব্রাউজার।

আপনি চাইলে আপনার মোবাইল নাম্বার দিয়ে জিমেইল অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন অথবা মোবাইল নাম্বার ছাড়া জিমেইল একাউন্ট খুলতে পারেন। তবে যদি আপনি আপনার জিমেইল এর পাসওয়ার্ড ভুলে যান সেক্ষেত্রে রিকভারি করার জন্য মোবাইল নম্বরটি কাজে লাগে।

তাই জিমেইল একাউন্ট খোলার সময় আপনি যদি মোবাইল নাম্বার ইউজ করেন তাহলে ভালো হয়।

আরো পড়ুনঃ মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম

 

জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো?

প্রথমেই জিমেইল আইডি খোলার জন্য আপনাকে আপনার ল্যাপটপ কম্পিউটার অথবা মোবাইল ফোন থেকে যে কোন একটি ব্রাউজার ওপেন করতে হবে। আমি গুগলক্রোম ব্রাউজারটিকে ইউজ করে থাকি। ব্রাউজার ওপেন করার পর নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুনঃ

জিমেইল আইডি বা অ্যাকাউন্ট কিভাবে খুলবো

ধাপ ১ঃ

আপনার ব্রাউজারের সার্চ বক্সে লিখুন www.gmail.com । তারপর এই ওয়েবসাইটটিতে ভিজিট করুন। এখন Create Account এই অপশনটিতে ক্লিক করুন।

জিমেইল আইডি বা অ্যাকাউন্ট কিভাবে খুলবো

আপনি যদি নিজের জন্য জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে চান তাহলে For me তে ক্লিক করুন। আর আপনি যদি আপনার কোন ব্যবসার জন্য জিমেইল একাউন্ট খুলতে চান তাহলে To manage my business সিলেক্ট করুন।

আরো পড়ুনঃ কিভাবে কম্পিউটারে ফোল্ডার লক করতে হয় । ফোল্ডার লক করার নিয়ম

জিমেইল অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম

ধাপ ২ঃ

তারপর আপনার ফার্স্ট নেম, লাস্ট নেম এবং জিমেইলের প্রথম ইউজারনেমটি দিয়ে দিন। তারপর একটি পাসওয়ার্ড নির্ধারণ করুন। সেই পাসওয়ার্ডটি পুনরায় দিয়ে দিন। এরপরে নেক্সট বাটনে ক্লিক করে দিন।

জিমেইল আইডি ভেরিফাই

ধাপ ৩ঃ

এখন আপনার কাছে ফোন নাম্বার এবং রিকভারি ইমেইল এড্রেস জানতে চাইবে। তবে এই দুইটি জিনিস অপশনাল। ফোন নাম্বারটি দিলে পরবর্তীতে পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে। সহজেই রিকভার করে নেওয়া যায়। তাই আমি সাজেস্ট করবো ফোন নাম্বারটি দিয়ে দেওয়ার জন্য। আপনি যদি দিতে না চান তাহলেও কোনো সমস্যা নাই।

তারপর আপনাকে আপনার জন্মতারিখ সিলেক্ট করে দিতে হবে। এরপর আপনাকে আপনার Gender সিলেক্ট করে দিতে হবে। আপনি যদি পুরুষ হয়ে থাকেন তাহলে Male সিলেক্ট করবেন। আর যদি মহিলা হয়ে থাকেন হলে Female সিলেক্ট করবেন। তারপরে নেক্সট বাটনটিতে ক্লিক করে দিন।

আরো পড়ুনঃ উইন্ডোজ টেন এ সি ড্রাইভের স্টোরেজ বাড়ান, ফরমেট বা ডাটা লস ছাড়াই

জিমেইল আইডি ভেরিফাই

ধাপ ৪ঃ

আগের পেজটিতে যদি আপনি আপনার ফোন নাম্বারটি দিয়ে থাকেন। তাহলে এই ধাপটিতে এসে আপনাকে আপনার ফোন নাম্বারটি ভেরিফাই করতে হবে। আপনি যেই নাম্বারটা দিয়েছিলেন সেই নাম্বারে একটি ভেরিফিকেশন কোড যাবে।

সেই কোডটি দিয়ে আপনাকে ভেরিফাই করে নিতে হবে। কিন্তু আপনি যদি কোন ফোন নাম্বার না দিয়ে থাকেন। তাহলে এই পেজটি আপনার সামনে আসবে না।

ধাপ ৫ঃ

এখন আপনার সামনে Google Privacy and Terms আসবে। এটি পড়ে আপনি নিচে থাকা I agree বাটনটিতে ক্লিক করে দিন। ব্যাস!! আপনার জিমেইল একাউন্ট খুলে গেছে। এখন আপনি এই জিমেইল আইডি ব্যবহার করে আপনার প্রয়োজনীয় কাজগুলো করতে পারবেন। কতো সহজ তাই না?

একাধিক জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো?

আপনি চাইলেই একাধিক জিমেইল আইডি খুলতে পারেন। তবে অবশ্যই রিয়েল ইনফরমেশন দিয়ে খুলতে হবে। ফেইক জিমেইল একাউন্ট খুললে ব্যান হওয়ার চান্স থাকে।

আর একাধিক জিমেইল একাউন্ট খোলার ক্ষেত্রেও এই একই পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে।

আশা করি জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো এই বিষয়টি নিয়ে আর কোন প্রশ্ন নেই। আর জিমেইল অ্যাকাউন্ট খোলা নিয়ে যদি কোন সমস্যা হয়। তাহলে আপনি নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন। আজকে এই পর্যন্তই। আশা করি সবকিছু ভালোমতো বুঝতে পেরেছেন। ধন্যবাদ সবাইকে।

Click to rate this post!
[Total: 0 Average: 0]

3 thoughts on “জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো ? । অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১”

  1. Great post. Wonderful information and really very much useful. Thanks for sharing and keep updating
    Thank You so much for sharing this information. I found it very helpful.Thank you so much again.

    Reply

Leave a Comment